সীমান্তে উত্তেজনা, ভুটানের এলাকা নিজেদের বলে দাবি চীনের

ভারত ও চীনের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। লাদাখ সীমান্তে গলওয়ান উপত্যকায় চীনা সেনাদের সঙ্গে সংঘর্ষের পর সতর্ক অবস্থানে আছে দুই দেশের সেনারা। এমন পরিস্থিতির মাঝেই ভুটানের বেশ কিছু এলাকা নিজেদের বলে দাবি করেছে চীন। গ্লোবাল এনভায়রনমেন্ট ফেসিলিটি কাউন্সিলের বৈঠকে সাকটেঙ্গ ওয়াইল্ড লাইফ স্যানচুয়ারি এলাকাকে বিতর্কিত বলে দাবি করেছে বেইজিং।

এই এলাকা নিয়ে অতীতে কখনই কোনও বিতর্ক হয়নি। যদিও এই এলাকায় চীন ও ভুটানের সীমানা নির্ধারিত ও নির্দিষ্ট নয়। চীনের এই দাবিকে কড়া ভাষায় খারিজ করেছে থিম্পু। সরকারি বিবৃতি প্রকাশ করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে এই সাকটেঙ্গ ওয়াইল্ড লাইফ স্যানচুয়ারি এলাকা একেবারেই ভুটানের নিজস্ব সীমানার মধ্যে পড়ছে। এই বিষয়ে কোথাও কোনও দ্বিমত নেই।

উল্লেখযোগ্য বিষয় এর আগে কখনও এই ওয়াইল্ড লাইফ স্যানচুয়ারি নিয়ে আলোচনা হয়নি। এই প্রথম কোনও আন্তর্জাতিক প্ল্যাটফর্মে উঠে এলো ওয়াইল্ড লাইফ স্যানচুয়ারির প্রসঙ্গ। আর সেই সুযোগকেই কাজে লাগাতে চাচ্ছে চীন।

উল্লেখ্য, গ্লোবাল এনভায়রনমেন্ট ফেসিলিটি কাউন্সিলে ২ জুন প্রজেক্ট নিয়ে আলোচনা ওঠে। চীনের কাউন্সিল সদস্য ঝোংঝিন ওয়াং ভুটানের সীমানায় থাকা এই স্যানচুয়ারি নিয়ে আপত্তি তোলেন। সেখানেই চীন দাবি জানায়, তাদের এই প্রকল্প আপত্তি রয়েছে, কারণ এটি বিতর্কিত এলাকায় অবস্থিত। তবে পরের দিনই চীনা প্রতিনিধি জানান, তাঁরা এই প্রকল্প থেকে নিজেদের সরিয়ে নিচ্ছেন। যেহেতু এটি চীন-ভুটান সীমান্তের বিতর্কিত এলাকায় রয়েছে, তাই চীন কোনভাবেই চায় না প্রকল্পটি হোক। কাউন্সিলের এই প্রকল্পের ব্যাপারে মতামত জানাতে অসম্মত হয় চীন। তবে চীনের এই দাবি পুরোপুরি অগ্রাহ্য ও অস্বীকার করছে ভুটান। তাদের দাবি এই সাকটেঙ্গ ওয়াইল্ড লাইফ স্যানচুয়ারি ভুটানের অন্তর্গত।

ad
ad

আন্তর্জাতিক সর্বশেষ

ad
ad

আন্তর্জাতিক সর্বাধিক পঠিত

আগের সংবাদ
পরের সংবাদ