করোনায় রেকর্ড: একদিনে ২২ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১৭৭৩

নিউজ ডেস্ক: দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ মহামারীতে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২২ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। একই সময়ে নতুন করে এক হাজার ৭৭৩ জনের দেহে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। যা এখন পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ও সংক্রমনের রেকর্ড।

বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস বিষয়ক নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়। বুলেটিন উপস্থাপন করেন অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (মহাপরিচালকের দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি বলেন, ‘আমরা গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করেছি ১০ হাজার ১৭৪টি। পূর্বের নমুনাসহ পরীক্ষা করেছি ১০ হাজার ২৬২টি। এই সংগৃহীত নমুনা থেকে শনাক্ত রোগী পেয়েছি ১ হাজার ৭৭৩ জন। এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে শনাক্ত হয়েছে ২৮ হাজার ৫১১ জন।’

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২২ জন মারা গেছেন করোনায়। ফলে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মোট ৪০৮ জন মারা গেলেন। একই সময়ে করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন আরও ১ হাজার ৭৭৩ জন, এটিও একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড। এতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২৮ হাজার ৫১১ জনে। এছাড়া সুস্থ হয়েছে ৩৯৫ জন। মোট সুস্থ হয়েছে ৫ হাজার ৬০২ জন।

অধ্যাপক নাসিমা বলেন, ‘যে ২২ জন মারা গেছেন, তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১০ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৮ জন, সিলেট বিভাগে ৩ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ১ জন। ঢাকা বিভাগের মধ্যে ঢাকা শহরে ৮ জন, ঢাকার অন্যান্য জেলায় ১ জন ও নারায়ণগঞ্জে ১ জন। চট্টগ্রামের ৮ জনের মধ্যে চট্টগ্রাম শহরের ৪ জন, কক্সবাজারে ১ জন এবং চাঁদপুরে ৩ জন। ময়মনসিংহের শহরে ১ জন। সিলেট বিভাগে সিলেট সিটি করপোরেশনে ১ জন এবং সিলেটের অন্যান্য জেলায় ২ জন।’

এর আগে বুধবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিল ১ হাজার ৬১৭ জন, মৃত্যু হয় ১৭ জনের। তার আগের দিন মঙ্গলবার শনাক্ত হয় ১ হাজার ২৫১ জন, মারা যায় ২১ জন।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রথম শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। আর গত ১৮ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর থেকে দিনে দিনে এর সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে।

ad
ad

জাতীয় সর্বশেষ

ad
ad

জাতীয় সর্বাধিক পঠিত

আগের সংবাদ
পরের সংবাদ