ব্যবসায়ীর ৬ লাখ টাকা ছিনতাই, ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার

দিনে দুপুরে প্রকাশ্যে ব্যবসায়ীর প্রায় ৬ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় ছাত্রলীগের এক নেতাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বুধবার রাতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত দলীয় প্যাডে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে রুহুল আমিনকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত জানানো হয়। রুহুল আমিন পাবনার জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ছিলেন।

আতাইকুলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি নাসিরুল আলম জানান, সাঁথিয়া উপজেলার আতাইকুলায় বৃহস্পতিবার বাজারের ভুষি ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলামের ছেলে মুসা কর্মচারীকে নিয়ে রবিবার দুপুরে আতাইকুলায় অগ্রণী ব্যাংকে টাকা জমা রাখতে আসেন। পথিমধ্যে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা ছিনতাইকারীরা বাজার সংলগ্ন ব্রিজ থেকে ব্যবসায়ীকে মারপিট করে ৫ লাখ ৮৫ হাজার টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়।

ব্যবসায়ী মুসার চিৎকারে পার্শ্ববর্তীরা ছিনতাইকারীদের ধাওয়া করলে টাকার ব্যাগ ফেলে তারা পালিয়ে যায়। ব্যবসায়ী মুসা আতাইকুলা থানায় মৌখিক অভিযোগ করেন। এরপর অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার থেকে জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন মৃর্ধা ও তার ছোট ভাই রানা মৃর্ধা ও মামা শিপনকে আটক করে পুলিশ। ছাত্রলীগ নেতাসহ আটককৃতদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

আতাইকুলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি নাসিরুল আলম জানান, ছিনতাইয়ের অভিযোগে তাদের আটক করা হয়। ছাত্রলীগ নেতা রুহুল আমীনের বিরুদ্ধে থানা একাধিক অভিযোগ রয়েছে।

ad
ad

অপরাধ সর্বশেষ

ad
ad

অপরাধ সর্বাধিক পঠিত

আগের সংবাদ
পরের সংবাদ