Home / slider / সার্ফেস ডুও: মাইক্রোসফট রিলিজ করছে এক অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন!

সার্ফেস ডুও: মাইক্রোসফট রিলিজ করছে এক অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন!

Loading...

নিউ ইয়র্কে অনুষ্ঠিত হওয়া মাইক্রোসফট সার্ফেস ২০১৯ ইভেন্টে কোম্পানিটি অনেক নতুন ডিভাইজ রিলিজ করেছে। এর মধ্যে সার্ফেস ইয়ারবাডস, সার্ফেস ল্যাপটপ ৩, সার্ফেস প্রো ৭, সার্ফেস প্রো এক্স এবং সার্ফেস নিও ছিল অন্যতম রিলিজ। কিন্তু সার্ফেস নিও এর পাশাপাশি মাইক্রোসফট আরেকটি নতুন ডুয়াল স্ক্রিন ডিভাইজ রিলিজ করেছে যার সম্পর্কে কেউই কোনো নিউজ জানত না বা কোনো লিকস ইন্টারনেট থেকে পাওয়া যায়নি আগে কখনো এটার নাম রাখা হয়েছে, সার্ফেস ডুও, এটা সার্ফেস নিও এর সঙ্গে সামনের বছর লঞ্চ করবে মাইক্রোসফট!

এই ডিভাইজটিকে মোবাইল ফোন বা স্মার্টফোন না বলে এরা সার্ফেস ডুও বলে ডাকছে, কারণ ডিভাইজটিতে রয়েছে দুইটি ৫.৬ ইঞ্চি সাইজের স্ক্রিন। সার্ফেস ডুও ডিভাইজটির দুইটি স্পেশাল ফিচার হচ্ছে, এতে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে এবং এটা দিয়ে কল গ্রহণ করতে পারবেন। মাইক্রোসফটের মতে, অনেকে এটাকে স্মার্টফোন বলে দাবি করলেও, এক সাধারণ স্মার্টফোনের চেয়ে অনেক বেশি কিছু করার জন্য একে ডিজাইন করা হয়েছে!

মাইক্রোসফটের মতে, দুইটি স্ক্রিন থেকে আপনি অনেক বেশি প্রোডাক্টিভিটি মেইনটেইন করতে পারবেন এবং তারা গুগলের সঙ্গে পার্টনারশিপ তৈরি করেছে যাতে বেস্ট অ্যান্ড্রয়েড সাপোর্ট দেওয়া সম্ভব হয় এই ডিভাইজটিতে। সত্যি বলতে এটা এক ফোল্ডেবল অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন, কিন্তু মাইক্রোসফট এটাকে সেই নজরে দেখছে না আপাতত!

এখন আপনার মনে প্রশ্ন আসতে পারে, তো এই ডিভাইজ দিয়ে আসলে হতে পারেটা কি? প্রথমে বলে রাখি, এটার নাম সার্ফেস ডুও রাখা হয়েছে আর তারা একে কোনো ফোন ও বলছে না, যেখানে সহজেই এর নাম সার্ফেস ফোন রাখা যেত। এর মানে মাইক্রোসফট স্মার্টফোন বিজনেসে নাম লেখাতে চাচ্ছে না। এদিকে স্মার্টফোন বিজনেস অনেক দূর এগিয়ে গেছে আর মার্কেট দখল করে রয়েছে অনেক শক্তিশালী ব্র্যান্ডগুলো। এটা ফোন বলে না ডেকে স্মার্টফোন কোম্পানিগুলোর সঙ্গে মাইক্রোসফট এখনই যুদ্ধ শেষ করে দিয়েছে।

কোম্পানিটির মতে, এটা ফোন প্রসাধনী ফোল্ডেবল স্ক্রিন ফোন নয় বা সার্ফেস ডুও অনেক ফ্যাক্টরে ভালো পারফরম নাও করতে পারে, তবে পেপার ওয়ার্ক ছাড়ায় ফোল্ডেবল ফোন বের করার প্যারা ও দেখা হয়েছে পূর্বে। যাইহোক, ভিডিও কলিং এ থাকার সময় আরেক স্ক্রিনে অ্যাডিশনাল ফিচার এনাবল করা যাবে যেটা প্রোডাক্টিভিটি বৃদ্ধি করবে। এভাবে আরো নতুন কিছু ফিচার যুক্ত করবে তারা যেগুলো স্মার্টফোন থেকে পাওয়া সম্ভব হবে না।

আপাতত এটুকুই, তবে পরে মাইক্রোসফট চাইলে সার্ফেস ফোন আনলেও আনতে পারে। আরো নতুন কি কি ফিচার নিয়ে প্যাকড হবে এই সার্ফেস ডুও সেটা দেখার জন্য দেরি করতে হবে বা লিক হয়ে সামনে আসতে পারে!

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*