Templates by BIGtheme NET
Home / slider / টাকা দিয়ে নিজেকেই খুন করালেন ব্যবসায়ী!

টাকা দিয়ে নিজেকেই খুন করালেন ব্যবসায়ী!

Loading...

ঋণের দায়ে জর্জরিত হয়ে লোক লাগিয়ে নিজেকেই খুন করালেন এক ব্যবসায়ী! তার মৃত্যুর পর জীবন বীমার টাকায় পরিবারের লোকজন যাতে স্বচ্ছল জীবনযাপন করতে পারে, সেজন্যই তিনি এমন সিদ্ধান্ত নেন বলে জানা গেছে।

গত ২ সেপ্টেম্বর ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের রাজস্থানের ভিলওয়াড়ায়। মৃত ওই ব্যক্তিকে ৩৮ বছরের বলবীর খারোল বলে চিহ্নিত করা গেছে। সুদের কারবার করতেন তিনি।

স্থানীয় পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সব মিলিয়ে সুদের ব্যবসায় প্রায় ২০ লাখ টাকা খাটিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু হাজার চেষ্টা করেও সেই টাকা উদ্ধার করতে পারেননি। বরং দেনার দায়ে নিজের সংসার চালানোই দায় হয়ে পড়ে। সেই অবস্থায় নিজেকে খুন করানোর পরিকল্পনা করেন তিনি। তার আগে একটি বেসরকারি ব্যাংকে ৫০ লাখ টাকার জীবনবীমা করান, যাতে তিনি মারা গেলেও বীমার টাকায় স্বাচ্ছন্দ্যে জীবন কাটাতে পারে তার পরিবার।

তদন্তে নেমে ইতোমধ্যেই রাজবীর সিংহ এবং সুনীল যাদব নামে দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বলবীর খারোল তাদেরকেই নিজের খুনের বরাত দিয়েছিলেন। পুলিশের দাবি, জেরায় অপরাধ স্বীকার করেছে ওই দু’জন।

তারা জানিয়েছেন, ২ সেপ্টেম্বর তাদের সঙ্গে দেখা করেন বলবীর খারোল। দু’পক্ষের মধ্যে ৮০ হাজার টাকায় রফা হয়, যার মধ্যে ১০ হাজার টাকা আগাম তাদের হাতে তুলে দেন বলবীর। বাকি টাকা তার পকেটে রয়েছে, কাজ হয়ে গেলে তা বার করে নিতে হবে বলে জানান তিনি।

এরপর পরিকল্পনা মতো বলবীর খারোলকে নিয়ে একটি নির্জন জায়গায় পৌঁছে যায় তারা। সেখানে প্রথমে বলবীরের হাত ও পা দড়ি দিয়ে বেঁধে ফেলে তারা। তারপর শ্বাসরোধ করে তাকে খুন করে।

ভিলওয়ারার পুলিশ সুপার হরেন্দ্র মহাওয়ার বলেন, “সিসিটিভি ফুটেজ এবং বলবীর খারোলের কল রেকর্ড দেখে দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। আগে কখনও এই ধরনের ঘটনা ঘটেনি এ রাজ্যে।”

বলবীর খারোলের বাড়িতে তার মা, বাবা, স্ত্রী এবং সন্তান রয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

সূত্র: আনন্দবাজার

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

5 × two =