Templates by BIGtheme NET
Home / slider / আওয়ামী লীগের ভাবনা, ডেঙ্গু আর বন্যা

আওয়ামী লীগের ভাবনা, ডেঙ্গু আর বন্যা

Loading...

এ দুই ইস্যু নিয়ে ভাবনার কারণ, বিএনপিসহ বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো এসব নিয়ে সোচ্চার হয়ে উঠেছে। সরকার ও আওয়ামী লীগ বিরোধী প্রচারনা চালাচ্ছে। রাজনৈতিক কোন ইস্যু না থাকলেও এই দুই বিষয়কে তারা ইস্যু বানাতে চাচ্ছে বলে মনে করছে আওয়ামী লীগ। দলটির নেতারা বলেছেন, ডেঙ্গু আর বন্যা দুটিই জনসম্পৃক্ত। মানুষ এ নিয়ে ভোগান্তির মধ্যে আছে। সরকারের পক্ষ থেকে উত্তরনের সর্বোচ্চ চেষ্টা চালানো হচ্ছে। দলের নেতারাও ঘরে বসে নেই। তারাও সরকারকে সহযোগিতা করছে। কিন্তু বিএনপিসহ কয়েকটি রাজনৈতিক দল এ নিয়ে জনমনে বিভ্রান্তি তৈরি করছে। সরকারের আন্তরিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে। মন্ত্রীসহ দুই মেয়রের পদত্যাগ দাবি করছে। বিষয়টিকে সম্পূর্ণ রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করতে হবে বলে তারা জানান। মানবজমিন

এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান বলেন, আমাদের সামনে এখন চিন্তার বিষয় ডেঙ্গু ও বন্যা। সরকারের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দলের নেতা-কর্মীরা ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করছে। জনগণের এ দুর্দশার সুযোগ নিচ্ছে বিএনপিসহ আরও কয়েকটি রাজনৈতিক দল। তারা জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে রাজনৈতিক প্রলেপ দিচ্ছে। ইস্যু বানানোর চেষ্টা করছে। তিনি বলেন, বিএনপি বরাবরই জনবিচ্ছিন্ন রাজনৈতিক চর্চা করে এসেছে। জনমনে ভীতির সঞ্চার করে তারা রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে চায়। এবারও একই চেষ্টা করছে। আমরা তাদের এ ধরনের উদ্দেশ্যকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করবো। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বিএনপিকে ডেঙ্গু নিয়ে রাজনীতি না করার অনুরোধ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ডেঙ্গু মশা তো দেখে-শুনে কামড়ায় না, সবাইকেই কামড়ায়। তাই বিএনপিকে অনুরোধ করবো, রাজনীতি করেন কিন্তু ডেঙ্গু নিয়ে রাজনীতি করবেন না। বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন,আপনারা সভা-সমাবেশ বাদ দিয়ে মাঠে নেমেছেন, ভালো কথা। কাজ করুন, মানুষের সাহায্য হোক, তা আমরা চাই। তিনি বলেন,আমরা তো কাজ করছি। মেয়র, মন্ত্রী সবাই কাজ করছি। এমনকি প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত চিকিৎসাধীন অবস্থায় থেকেও পরামর্শ দিচ্ছেন। তাই এসব নিয়ে রাজনীতি না করে ডেঙ্গু মুক্ত করার জন্য সরকারকে সাহায্য করুন, এটা আমরা চাই। এদিকে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ডেঙ্গু প্রতিরোধে তিন দিনব্যাপী সারাদেশে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান কর্মসূচি চালানো হচ্ছে। দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আমরা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ভয়ঙ্কর ডেঙ্গু মশার বিস্তার রোধকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছি। শেখ হাসিনার নির্দেশ পরিচ্ছন্ন ডেঙ্গুমুক্ত বাংলাদেশ। আমরা সেটি সফল করার জন্য কাজ করছি। আমরা ভাষণে বিশ্বাস করি না। আমাদের নেতাকর্মীরা ঢাকা সিটির প্রত্যেক ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নিচ্ছেন। এ কর্মসূচির মূল প্রতিপাদ্য সচেতনতামূলক। এর আগে ২৯ শে জুলাই বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সংবাদ সম্মেলন করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, ঢাকা উত্তর সিটি মেয়র আতিকুল ইসলাম ও দক্ষিণ সিটি মেয়র সাঈদ খোকনের পদত্যাগ দাবি করেন। অন্যদিকে, দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন,যথাসময়ে পদক্ষেপ না নেয়ায় বন্যা ও ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সরকার ব্যর্থ হয়েছে। বন্যার আগেই ভারতের সঙ্গে কথা বলে বাংলাদেশের উজানের গেইটগুলো নিয়ন্ত্রণ করা যেত। কিন্তু সরকার তা করতে পারেনি। বিএনপির এ ধরনের দাবিকে অযৌক্তিক বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন,বিএনপি টপ টু বটম নির্বাচনে ব্যর্থ, আন্দোলনে ব্যর্থ। অন্যের ব্যর্থতা নিয়ে কথা বলার আগে বিএনপির নেতাদের টপ টু বটম পদত্যাগ করা উচিৎ। তিনি বলেন,আমরা বার বার বলছি আমরা এটা নিয়ে উদ্বিগ্ন। প্রধানমন্ত্রী উদ্বিগ্ন, তিনি লন্ডনে চিকিৎসায় আছেন। তারপরও তিনি প্রতিনিয়ত আমাদের সঙ্গে কথা বলছেন,নির্দেশনা নিচ্ছেন। ডেঙ্গুর মধ্যেই স্বাস্থ্যমন্ত্রীর বিদেশে থাকা নিয়ে তিনি বলেন,স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিদেশে থাকলেও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কাজ থেমে থাকেনি। এখন মোবাইল ফোনেও নির্দেশনা দেয়া যায়। তিনি জরুরি কাজে বিদেশে যেতে পারেন, বিনা অনুমতিতে তিনি যাননি।

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

six + 14 =