Templates by BIGtheme NET
Home / slider / তাবলীগের বিষয়ে দেওবন্দের নামে যা হচ্ছে তা আসলে বিকৃতি (ভিডিও)

তাবলীগের বিষয়ে দেওবন্দের নামে যা হচ্ছে তা আসলে বিকৃতি (ভিডিও)

Loading...

তাবলীগ জামাতের সাম্প্রতিক বিভক্তি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ে বৈঠক ও অানুসাঙ্গিক বিষয়ে মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদের একটি ভিডিও বক্তব্য প্রকাশ হয়েছে। সেখানে আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদকে প্রশ্ন করা হয়,দেওবন্দের মতামতের ভিত্তিতে সাদ সাহেবের ব্যাপারে আপনার অভিমত কি? এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন,

দেওবন্দের বিষয়টা আমার কাছে পরিষ্কারই মনে হয়। শেষ যে দেওবন্দের বক্তব্য তাতে বলা হয়েছে, মাওলানা সাদের শর্তহীন রুজু করা অর্থাৎ তার মত থেকে ফিরে আসা, বিশেষ করে হজরত মুসা (আ.) এর বিষয়ে সাদ সাহেব বলেছেন, আমি শর্তহীনভাবে আমার মত থেকে ফিরে আসলাম। এই বিষয়টিকে দেওবন্দ গ্রহণ করেছে কিন্তু ভবিষ্যতে মাওলানা সাদ সাহেবের পক্ষ থেকে এধরণের বক্তব্য প্রকাশ পায় কিনা সেই বিষয়ে আশঙ্খাও প্রকাশ করেছে দেওবন্দ। দেওবন্দের বক্তবে একটা বিষয় স্পষ্ট যে, মাওলানা সাদ আহলে সুন্নাহ ওয়াল জামাত থেকে বহিষ্কৃত হয়ে গেছেন বা তিনি ইসলামের বাহিরে চলে গেছেন, তিনি গোমরা হয়ে গেছেন, তিনি কি অনুসরণের যোগ্য বা যোগ্য না এই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি। তাবলিগের বিষয়টিকে দেওবন্দ স্পষ্ট ঘোষণা দিয়ে বলেছে যে, তাবলিগের বিভক্তি হলো তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এই বিষয়ে আমাদের কোনো বক্তব্য নাই। আমরা (দেওবন্দ) কেবল মাওলানা সাদের আপত্তি কর কিছু বক্তবের বিষয়ে তাকে সতর্ক করেছি। নিজামুদ্দীনের সাথে কে সম্পর্ক রাখবে আর কে সম্পর্ক রাখবে না বা মাওলানা সাদকে কে অনুসরণ করবে আর কে অনুসরণ করবে না এই বিষয়গুলো নিয়ে দেওবন্দ কোনো বক্তব্য দেয়নি। সুতরাং বাংলাদেশে দেওবন্দের নামে যা হচ্ছে সেটা আসলে একটা বিকৃতি এবং দেওবন্দকে অপব্যহার করছে অনেক ক্ষেত্রে, বাড়াবাড়ি করছে অনেক ক্ষেত্রে। তাই আমি সকলকে আহ্বান জানাবো, আমরা যদি সত্যিকারে দেওবন্দকে মানি, এবং দেওবন্দকে যদি আমরা আমাদের মাপকাঠি মনে করি, তাহলে দেওবন্দ যেই বিষয়ে যতটুক বলেছে, আমাদেরকে সেই বিষয়ে ততটুকের মাঝেই থাকা প্রয়োজন। বাড়াবাড়ি করা বা নিজেদের পক্ষ থেকে কিছু বাড়ানো না।

ইউটেউবে ইকরা মাল্টিমিডিয়ার একটি ভিডিওতে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান ও ঐতিহাসিক শোলাকিয়ার গ্র্যান্ড ইমাম শাইখুল হাদিস আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ তাবলিগের বেশ কয়েকটি প্রশ্নের উত্তর দেন।

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

fifteen − 10 =