Templates by BIGtheme NET
Home / slider / বাংলাদেশ ব্যাংকের ভুয়া নিয়োগপত্র!

বাংলাদেশ ব্যাংকের ভুয়া নিয়োগপত্র!

Loading...

প্রতারক চক্রের ভুয়া নিয়োগ পরীক্ষার পর এবার এক নারীকে দেয়া হলো বাংলাদেশ ব্যাংকে চাকরির ভুয়া নিয়োগপত্র। নিয়োগপত্রে ব্যবহার করা হয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের হুবহু লোগো। একে গ্রহণযোগ্য করতে দেয়া হয়েছে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির (বিএসসি) সদস্য সচিব মো. মোশাররফ হোসেন খানের জাল স্বাক্ষর।

ভুয়া নিয়োগপত্রটি রোববার  হাতে এসেছে। প্রতারণার শিকার হওয়া চাকরিপ্রার্থীর নাম লায়লা। তিনি যোগদানের জন্য রোববার বাংলাদেশ ব্যাংকের রিসেপশনে গেলে ধরা পড়ে বিষয়টি।

bbবাংলাদেশ ব্যাংক সূত্র জানায়, রোববার দুপুরে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিসেপশনে আসেন এক নারী। নিয়োগপত্রটি দেখিয়ে রিসেপসনিস্টকে তিনি জানান, তাকে বাংলাদেশ ব্যাংকের খুলনা অফিসে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রকৃত নিয়োগপত্রের সঙ্গে মিল না পেয়ে তিনি সরাসরি ব্যাংকে আসেন।

তিনি জানান, ব্যাংকের খুলনা অফিসে ১২ মার্চ আমার যোগদান করার কথা। বিষয়টি একটু যাচাই-বাছাই করার জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে এসেছি।

তিনি বলেন, সেলিম নামের এক ব্যক্তি তাকে বাংলাদেশ ব্যাংকে চাকরি দিয়েছেন। চাকরির জন্য ওই সেলিমকে চার লাখ টাকা দেয়ার কথা হয়েছে। তবে টাকা এখনও দেননি তিনি।

নিয়োগপত্রটিতে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি সচিবালয় এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় লেখা রয়েছে। পাশে বাংলাদেশ ব্যাংকের লোগো। নিচে বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক ও ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির সদস্য সচিব মো. মোশাররফ হোসেন খানের নাম এবং স্বাক্ষর। তার পাশে লায়লার বিস্তারিত নাম, বাবার নাম, গ্রাম, জেলা ও উপজেলার নাম দেয়া।

লায়লার এই প্রতারণার শিকার হওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক ও ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির সদস্য সচিব মো. মোশাররফ হোসেন খান বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। এটি পুরোটাই ভুয়া। এখন কেউ না বুঝে জালিয়াত চক্রের খপ্পরে পড়লে আমার কী করার আছে? ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি বাংলাদেশ ব্যাংকে কোনো জনবল নিয়োগ দেয় না। এছাড়া নিয়োগপত্রে নামের ওপর স্বাক্ষর দেয়া হয় না।

তিনি আরও বলেন, কিছুদিন আগে এ ধরনের দুই জালিয়াত চক্র পুলিশের হাতে ধরা পড়ে। এসব চক্রের হোতাদের ধরার দায়িত্ব আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর। এখানে বাংলাদেশ ব্যাংকের খুব বেশিকিছু করার নেই।

সূত্র জানায়, বাংলাদেশ ব্যাংকসহ বিভিন্ন ব্যাংকের জনবল নিয়োগে এক শ্রেণির প্রতারক চক্র সক্রিয় হয়ে ওঠেছে। বিপুল অংকের অর্থের বিনিময়ে তারা ব্যাংকে নিয়োগের প্রলোভন দেখায়। কখনও সরাসরি নিয়োগ আবার কখনও পরীক্ষার মাধ্যমে নিয়োগের কথা বলে টাকা হাতিয়ে নেয়। এভাবে দীর্ঘদিন ধরে সহজ-সরল মানুষদের ধোঁকা দিয়ে যাচ্ছে চক্রটি।

লায়লার দেয়া নাম ও ফোন নম্বরের ভিত্তিতে অভিযুক্ত সেলিমকে ফোন দেয়া হলে একজন ফোনটি রিসিভ করে জানান, তার নাম মজিদ। এ বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। -জাগো নিউজ

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

twenty + six =