Templates by BIGtheme NET
Home / slider / হাতাহাতির পর বিএনপির বিদ্রোহী আইনজীবীদের ‘পাল্টা প্যানেল’

হাতাহাতির পর বিএনপির বিদ্রোহী আইনজীবীদের ‘পাল্টা প্যানেল’

Loading...

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ২০১৮-১৯ সেশনের নির্বাচনে বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা দ্বিধাবিভক্ত। আসন্ন এ নির্বাচনের জন্য জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেল নামে একটি পৃথক ও স্বতন্ত্র প্যানেল ঘোষণা করা হয়েছে।

বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত আইনজীবীদের নিয়মিত সংগঠন জাতীয়তবাদী ঐক্য প্যানেলের (নীল প্যানেল) সভাপতি-সম্পাদক পদে প্রার্থী চূড়ান্ত করার এক দিনের মাথায় আজ বুধবার (৭ মার্চ) বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে নতুন এই প্যানেল ঘোষণা করা হয়।

প্যানেলের সভাপতি হিসাবে এডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার ও সম্পাদক হিসাবে এবিএম রফিকুল ইসলাম তালুকদার রাজাকে মনোনীত করে ১৪ জনের পূর্ণাঙ্গ প্যানেল ঘোষণা করা হয়েছে। তবে প্রশ্ন উঠেছে সহসভাপতি পদে একজন চিকিৎসককে মনোনীত করা নিয়ে। আইনজীবীদের নির্বাচনে একজন ডাক্তারের প্রার্থীতা বিস্ময়কর বটে।

সভাপতি ও সম্পাদক ছাড়া প্যানেলে মনোনীত অন্যান্য প্রার্থীরা হলেন- সহ সভাপতি পদে ডাঃ মোঃ গোলাম রহমান ভূঁইয়া ও আলহাজ্ব মুহাম্মদ মোসলেম উদ্দিন, অর্থ সম্পাদক পদে অ্যাডভোকেট আয়ুব আলী আসরাফী, সহ সম্পাদক পদে শরীফ ইউ আহমেদ ও মোঃ আবু হানিফের নাম ঘোষণা করা হয়েছে।

এছাড়া, সদস্য পদে মনোনীতরা হলেন- অ্যাডভোকেট মোঃ মমিন উল্ল্যাহ পাটোয়ারী, মোহাম্মদ নাজমুল হাসান, সাবিনা ইয়াসমিন লিপি, মোঃ সফিউর রহমান, মোঃ ইকবাল হোসেন এবং আব্দুস সামাদ।

জানা গেছে, গতকাল নীল প্যানেলের সভাপতি-সম্পাদকের নাম চূড়ান্তের পর থেকেই আইনজীবীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছিল। এরই ধারাবাহিকতায় আজ সকাল থেকেই আদালত প্রাঙ্গনে বিক্ষোভ দেখান আইনজীবীরা। এরপরই সংবাদ সম্মেলন করে পাল্টা এ প্যানেল ঘোষণা করা হয়।

প্রসঙ্গত, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির কনফারেন্স কক্ষে বিএনপি সমর্থিত জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সিনিয়র আইনজীবীদের এক বৈঠকে গতকাল মঙ্গলবার (৬ মার্চ) রাতে সভাপতি ও সম্পাদক পদে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়। এতে সভাপতি হিসেবে অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন এবং সম্পাদক হিসেবে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনকে মনোনীত করা হয়।

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

4 × four =