কাদেরের বক্তব্য অশনি সংকেত: মির্জা ফখরুল

Loading...

 

রোহিঙ্গা ইস্যুতে শুক্রবার অনুষ্ঠিত বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচি নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সমালোচনা করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন,‘‘তিনি (কাদের) বলেছেন, ‘রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার নিয়ে বিএনপি মানববন্ধন করবে। আশঙ্কা হচ্ছে, তারা নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষে লিপ্ত হয় কিনা? তারা সভা-সমাবেশ ডাক দিলেই নিজেরা নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এর দায় চাপায় আওয়ামী লীগের ওপর।’ ওনার বক্তব্য এক অশনি সংকেত। তার এ কথায় বোঝা যায়, তাদের (আওয়ামী লীগ) মাথায় অন্য কোনও পরিকল্পনা আছে।’’

বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সাবেক অর্থমন্ত্রী এম. সাইফুর রহমানের অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এক স্মরণ সভায় তিনি এ কথা বলেন। এম. সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদ এই সভার আয়োজন করে।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বিএনপি নয়, আওয়ামী লীগ নিজেরা-নিজেরাই সংঘর্ষে লিপ্ত হচ্ছে। প্রতিনিয়তই খবরের কাগজ খুললে তা দেখা যায়। নিজেরাই নিজেদের কর্মীকে খুন করছে। গতকালও (বুধবার) নোয়াখালীতে নিজেদের মধ্যে গোলাগুলি হয়েছে। অনেকেই আহত হয়েছেন। গত কয়েক বছরে আওয়ামী লীগ নিজেরা নিজেদের কতজন খুন করেছে, তার হিসাব আমিও করতে পারবো না। ধর্ষণ,খুন ও গুমের নেতৃত্বে রয়েছে আওয়ামী লীগ।’

Loading...

রোহিঙ্গা ইস্যুতে সরকার সুবিধাবাদী ভূমিকা পালন করছে, এমন অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার মিয়ানমারে রোহিঙ্গা নির্যাতনের ঘটনায় সুবিধাবাদী ভূমিকার পালন করছে। প্রাণের ভয়ে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় পর্যন্ত দিচ্ছে না। আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, আন্তর্জাতিক কূটনৈতিক প্রচেষ্টার মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকারকে বাধ্য করতে হবে। সুবিধাবাদী অবস্থান না নিয়ে মানবতার পক্ষে অবস্থান গ্রহণ করুন।’

তিনি আরও বলেন, ‘অপরাধ দমনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবহার না করে প্রতিপক্ষকে দমনে ব্যবহার করা হচ্ছে।’

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘বর্তমান সরকার মিথ্যা কথা বলে। পরিসংখ্যান কথা বলে, বিএনপির সরকারের আমলে সাইফুর রহমানের নেতৃত্বে সবচেয়ে বেশি প্রবৃদ্ধির হার বদ্ধি পেয়েছে। আজকে ব্যাংকগুলো লুট করে নিয়ে গেছে…।’

সাইফুর রহমানের বিকল্প এখনও দেখিনি উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘যাকে আমরা অর্থনীতির পথিকৃত বলি তিনি হলেন সাইফুর রহমান।’

এম. সাইফুর রহমানের বড় ছেলে এম. নাসের রহমানের সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারপাম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন প্রমুখ।

মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এম. সাইফুর রহমানের জীবন-আদর্শ নিয়ে একটি স্মরণিকা প্রকাশ করে তার নামে গঠিত স্মৃতি পরিষদ।

ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*