সবচেয়ে ভয়ঙ্কর ২০ দেশের তালিকায় বাংলাদেশ, নেই মিয়ানমার

Loading...

পৃথিবীর সবচেয়ে নিরাপদ এবং ভয়ঙ্করতম দেশগুলোর তালিকা প্রকাশ করেছে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম। পর্যটকদের সুচিন্তিত ও নিরাপদ ভ্রমণের জন্য প্রতিবছরই এই তালিকা প্রকাশ করা হয়। পৃথিবীর অন্তত ১৩৬টি রাষ্ট্রকে নিরাপদ ও ভয়ঙ্কর দেশের তালিকায় রাখা হয়েছে। ব্যবসায়ীক নিরাপত্তা, সন্ত্রাসবাদ, প্রাকৃতিক দুর্যোগ ইত্যাদি বিষয় মাথায় রেখে তালিকাটি প্রস্তুত করা হয়েছে। এসব দিক বিবেচনায় পৃথিবীর ভয়ঙ্করতম দেশ হিসেবে এক নম্বরেই আছে কলম্বিয়ার নাম। তালিকায় রয়েছে বাংলাদেশের নামও। সাম্প্রতিক সময়ে দেশে জঙ্গি কার্যক্রম থেকে শুরু করে রাজনৈতিক অনিশ্চয়তা ও অস্থিরতা ছাড়াও বন্যা ভূমি ধ্বসের মতো প্রকৃতিক দুর্যোগ গুলো এর নেপথ্যে কাজ করেছে।

Loading...

তালিকা অনুযায়ী, পৃথিবীর ১৪তম ভয়ঙ্কর দেশ বাংলাদেশ। ওই তালিকায় এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে এগিয়ে পাকিস্তানের নাম। দেশটি ভয়ঙ্করতার দিক থেকে ৪র্থ অবস্থানে রয়েছে। এছাড়া ১১তম অবস্থানে ফিলিপাইন এবং ১৯তম স্থানে রয়েছে থাইল্যান্ডের নাম। রাষ্ট্রীয় ইন্ধনে রোহিঙ্গাদের উপর বর্বর হামলা চালানো সত্তে¡ও তালিকায় নেই মিয়ানমারের নাম।

ভয়ঙ্কর দেশের তালিকায় ঠাঁই করে নেওয়া বেশিরভাগ দেশই আফ্রিকার। এসব দেশের মধ্যে ক্রমান্বয়ে আছে ইয়েমেন, নাইজেরিয়া, মিশর, কেনিয়া, লেবানন, মালি, চাদ, দক্ষিণ আফ্রিকা ও কঙ্গো। মধ্য আমেরিকার দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে হন্ডুরাস, গুয়াতেমালা ও জ্যামাইকার নাম। দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশের দুটি দেশ হলো- কলাম্বিয়া ও ভেনিজুয়েলার নাম। আর ইউরোপের একমাত্র দেশ হিসেবে তালিকার ১০ নম্বরে আছে ইউক্রেনের নামটি।

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের বার্ষিক এই তালিকাটি পর্যটনের ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন। ভয়ঙ্কর দেশের তালিকায় থাকা দেশগুলোর পর্যটনে স্বাভাবিকভাবেই নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। দ্য ইনডিপেন্ডেন্ট

ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*