আদাবর থানা ছাত্রলীগ নেতাকে রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যা

রাজধানীর আদাবর থানা ছাত্রলীগের এক নেতাকে রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ সময় তাঁকে ইট দিয়েও আঘাত করা হয়।

রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে আদাবরের শেখেরটেক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তির নাম মশিউর রহমান (২৩)। তিনি আদাবর থানা ছাত্রলীগের পরিবেশ ও সমাজসেবাবিষয়ক সম্পাদক ছিলেন বলে জানিয়েছেন আদাবর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হাবিবুর রহমান।

নিহত মশিউরের বাবা জুলহাস দেওয়ান জানান, তাঁরা আদাবর শেখেরটেক এলাকার ১১ নম্বর সড়কে বাস করেন। গত রাত ১১টার দিকে মোটরসাইকেল চালিয়ে বাড়ি ফেরার সময় শেখেরটেক ১০ নম্বর সড়কের কাছে মশিউরের গতিরোধ করেন পূর্বপরিচিত কয়েক ব্যক্তি।

এ সময় তাঁরা মশিউরকে রড দিয়ে পেটান এবং মাথায় ইট দিয়ে আঘাত করেন। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় মশিউরকে সেখানে ফেলে পালিয়ে যান। স্থানীয়দের সহায়তায় মশিউরকে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাত সাড়ে ১২টার দিকে চিকিৎসক মশিউরকে মৃত ঘোষণা করেন।

জুলহাস দেওয়ানের দাবি, এ ঘটনায় মোল্লা স্বপন, লদুসহ সাত/আটজন জড়িত ছিল। তিনি বলেন, মশিউর ছাত্রলীগ নেতা হওয়ার স্থানীয় অনেককে মাদক ব্যবসায় বাধা দিতেন। এর কারণে ব্যবসায়ীরা ক্ষিপ্ত হয়ে তার ওপর হামলা চালায়।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক বাচ্চু মিয়া  জানান, মশিউরের লাশ মর্গে রাখা রয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে তা পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

ad
ad

রাজনীতি সর্বশেষ

ad
ad

রাজনীতি সর্বাধিক পঠিত

আগের সংবাদ
পরের সংবাদ