Templates by BIGtheme NET
Home / slider / ড. জাফর ইকবালের মেয়ের হৃদয়স্পর্শী লেখা

ড. জাফর ইকবালের মেয়ের হৃদয়স্পর্শী লেখা

Loading...

ড. জাফর ইকবালের কন্যা ইয়েশিম ইকবাল তাঁর বাবার ওপর হামলার প্রতিক্রিয়া জানিয়ে ব্লগ লিখেছেন। তাঁর সেই ব্লগটি এরই মধ্যে অনেকেই শেয়ার করছেন এবং তা নিয়ে মন্তব্য করছেন।

ইয়েশিম ইকবাল লিখেছেন যে, তাঁর খুব অস্বস্তি ও দু:খ হচ্ছে যে বাংলাদেশ নিরাপদ নেই। যে প্রাঙ্গনে তিনি বড় হয়েছেন, সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবোটিক্স প্রতিযোগিতার সময় তাঁর বাবার ওপর ছুরি নিয়ে হামলা হয়েছে। অনেকেই তাঁকে প্রশ্ন করেছেন যে, কেন এই দেশ ছেড়ে তিনি বা তাঁর পরিবার চলে যাচ্ছেন না?

তিনি এসবের প্রতিক্রিয়ায় লিখেছেন, ‘‘আমি কিছু কথা বলতে চাই৷ আমি ঠিক জানি বাবা সুস্থ হওয়র পর এই কথাগুলিই বলবেন। দেখুন, আপনি আশাহীন হয়ে থাকতে পারেন না। আপনি কিংবা আপনার দেশের জন্য যা কিছু ভালো, যা কিছু সুন্দর তার জন্য লড়াই থামিয়ে দিতে পারেন না।”

ইয়েশিম লিখেছেন, ‘‘কোনোকিছুই সহজে আসেনি। আজ এই পৃথিবীতে আপনি যতটুকুই উপভোগ করছেন– স্বাধীনভাবে চলার জন্য একটি রাস্তা, খাবার, চিকিৎসা, স্কুলে যাবার অধিকার, ভোট দেয়ার অধিকার, কাজ করে অর্থ আয়ের সুযোগ, অথবা রিক্সায় করে ঘুরে বেড়ানো এবং প্রিয়জনের সঙ্গে ফুচকা খেয়ে পেট খারাপ করা –এ সবই করতে পারছেন, কারণ, কেউ আপনার আগে এই পৃথিবীতে এসেছিলেন… কাউকে এর জন্য যুদ্ধ করতে হয়েছিল একটু একটু করে, দিনের পর দিন, বছরের পর বছর। এই যুদ্ধ আমার বাবা-মা, আমি, আপনি আমাদের মতো মানুষেরাই করেছেন। তাঁরা আমাদের যা দিয়ে গেছেন, তা উপভোগ করা আমাদের অধিকার ও দায়িত্ব। আর সেই সঙ্গে এ-ও দায়িত্ব যে, আমরা যেন এই যুদ্ধ চালিয়ে যাই। তাতে করে আমাদের সন্তানেরা এর ফল ভোগ করতে পারবে।”

তিনি লিখেছেন যে, যখন এই পথচলা কঠিন হবে, তখন বড় করে একটা নিঃশ্বাস নিতে হবে। এরপর মাথা উঁচু করে জেদী হয়ে এগিয়ে যেতে হবে সামনে। এই যুদ্ধে যাঁরা স্বজন হারিয়েছেন, তাঁদের কথাও লিখেছেন ইয়েশিম ইকবাল।

দেশ ছেড়ে তিনি কেন চলে যাবেন না, তা জানাতে গিয়ে তিনি আরো লিখেছেন, ‘‘আমি এই দেশে থাকি, কারণ আমি তা-ই পছন্দ করি। আমার কাছে এই দেশ মানে এ ধরনের কলঙ্কিত ঘটনাগুলো নয়। এই ঘটনা এবং যারা এসব ঘটাচ্ছে, তারা এই দেশের জন্য সমস্যা, যে সমস্যা নিয়ে অতি দ্রুত কাজ করা দরকার।”

‘‘এ ধরনের মানুষগুলো ছত্রাকের মতো” উল্লেখ করে ইয়েশিম বলেন, ‘‘এগুলো গজিয়েছে কারণ, ঠিকমতো পরিষ্কার করা হয়নি।”

তাঁর বাবার হামলার পর সবাই যেভাবে এগিয়ে এসেছেন তার জন্য কৃতজ্ঞতা জানিয়ে পরিশেষে ইয়েশিম ইকবাল লিখেছেন, ‘‘কোনো ভুল হবে না৷ আমরা কোথাও যাচ্ছি না।”

তাঁর এই পোস্টের প্রতিক্রিয়ায় অনেকেই উজ্জীবিত হয়েছেন। ফেসবুক টু্ইটারে পোস্ট দিয়েছেন। ফেসবুকে অনিক লিখেছেন, ‘‘অসম্ভব পাওয়ারফুল মেসেজ। বাবা, জাফর ইকবালকে হত্যার হুমকি দেয়া হচ্ছে অনেক আগে থেকে, এবার সরাসরি হত্যার চেষ্টা। উনাদের জন্য চলে যাওয়াটা খুব সহজ, তবু এই সময় উনি শিরদাঁড়া সোজা করে বললেন, ‘‘we are not going anywhere”

নাসরিন শাপলা লিখেছেন, ‘‘লেখাটার মাঝের পজিটিভিটি আর ইয়েশিমের র‍্যাশনাল চিন্তা ভাবনার ক্ষমতা আমাকে মুগ্ধ করেছে।”

টুইটারে বিপাশা এস. হোসেইন পোস্ট দিয়ে বব মার্লির একটি খুব শক্তিশালী একটি গানের কথা লিখেছেন, ‘‘The people who were trying to make this world worse are not taking the day off. Why should I?”

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

twenty − eighteen =