জামিন পেলেন ইসরায়েলি সেনাকে লাথি মারা সেই ফিলিস্তিনি তরুণী

Loading...

ফিলিস্তিনের ২০ বছর বয়সী সাহসী তরুণী নূর তামিমি’র কথা মনে আছে?
ইসরায়েলের দুজন সেনাকে গত মাসে লাথি, চড় মেরে আলোচনায় এসে অল্প সময়েই স্টার হয়ে গেছেন তিনি। নূর ও তার চাচাতো বোন আহেদ তামিমি চড়-থাপ্পড়সহ ইসরায়েলি সেনাদের লাথি মেরেছিলেন। অধিকৃত পশ্চিম তীরে সেনারা তাদের বাড়ির সামনে গিয়ে বাকবিতণ্ডায় জড়ান। এক র্পযায়ে দু’জন সেনাকে চড়, লাথি মারেন নূর। ইসরায়েলি সেনাদের হয়রানির অভিযোগে পরে তাদের আটক করা হয়।
নূরের মাকেও আটক করেছিলো ইসরায়েলি সেনারা। র্বতমানে তারা জামিনে ছাড়া পেয়েছেন। নূর ইসরায়েলি সেনাদের লাথি মেরেছিলেন গত বছরের ডিসেম্বরে।১৫ ডিসেম্বরের সেই ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে ভাইরাল হয়ে যায়।
শুক্রবার নূরের বাবা নাজিম তামিমি র্বাতা সংস্থা এএফপিকে বলেন, এক হাজার চার’শ ডলারের মাধ্যমে তাদের জামিন করিয়ে নেওয়া হয়েছে।
নূর তামিমি গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে পড়াশোনা করছেন আল কুদস ইউনিভার্সিটিতে। তাকে প্রতি শুক্রবার বিকেলে ইসরায়েলের পুলিশ স্টেশনে গিয়ে স্বাক্ষর করে আসতে হবে।
তার বিরুদ্ধে অভিযোগ হলো, ইসরায়েলি সেনাদের দায়িত্ব পালনে বিঘ্ন ঘটিয়েছেন নূর। আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি পরবর্তী শুনানির দিন র্ধায করা হয়েছে।
এই মামলা ছাড়া আরো ১২টি অভিযোগ করা হয়েছে নূরের বিরুদ্ধে। সেনাদের শারীরিকভাবে নির্যাতন, পাথর নিক্ষেপের মতো মামলাও রয়েছে। তার মায়ের বিরুদ্ধে করা হয়ছেে পাঁচটি মামলা।
সূত্র : আলজাজিরা/নিউজ ২৪

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*