সার্চ কমিটির সদস্যদের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন বিএনপি’র

Loading...

নতুন নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে গঠিত সার্চ বা অনুসন্ধান কমিটির ৫ সদস্যের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিএনপি। আজ শুক্রবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে অনুসন্ধান কমিটি নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিক্রিয়া জানান দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
মির্জা ফখরুল বলেন, সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের একজন মাননীয় বিচারপতিকে প্রধান করে ছয় সদস্যের অনুসন্ধান কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগের বার গঠিত অনুসন্ধান কমিটিরও প্রধান ছিলেন তিনি। সেই কমিটির প্রস্তাবের ভিত্তিতে কাজী রকিবউদ্দীন আহমেদের নেতৃত্বাধীন বর্তমান ইসি গঠিত হয়। বর্তমান ইসি অযোগ্য, মেরুদ-হীন, বিতর্কিত। আগের অনুসন্ধান কমিটির প্রধানকে নতুন অনুসন্ধান কমিটির প্রধান করার অর্থ সরকার আরেকটি অনুগত ও অযোগ্য ইসি করতে চায়।
বিএনপির মহাসচিব বলেন, অনুসন্ধান কমিটির আরেক সদস্য সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি। তিনি ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতা ছিলেন। আওয়ামী লীগ-সমর্থিত আইনজীবী হিসেবে বহুল পরিচিত ছিলেন। তার পিতা আওয়ামী লীগের অন্যতম নেতা ছিলেন। তার ছোট ভাই প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব হিসেবে কর্মরত আছেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, অনুসন্ধান কমিটির আরেক সদস্য সরকারি কর্ম কমিশনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক। গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় তিনি নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব ছিলেন। বিতর্কিত সেই নির্বাচনকে নিয়মসিদ্ধ করার পুরস্কার হিসেবে অবসরের পর তাঁকে চেয়ারম্যান করা হয়েছে। তিনি সরকারের ইচ্ছা পূরণে সচেষ্ট থাকবেন, এটাই স্বাভাবিক।
অনুসন্ধান কমিটির একমাত্র নারী সদস্য চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি শিরীন আখতার সম্পর্কে বিএনপির মহাসচিব বলেন, শিরীন আখতার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামীপন্থী শিক্ষক নেতা হিসেবে পরিচিত। তার বাবা কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। শিরীন আখতার নিজেও কক্সবাজার মহিলা আওয়ামী লীগের নেত্রী ছিলেন।
অনুসন্ধান কমিটির আরেক সদস্য বাংলাদেশের মহাহিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক মাসুদ আহমেদ। তার সম্পর্কে মির্জা ফখরুল বলেন, রাজনৈতিক সরকারে অধীনস্ত একজন সরকারি কর্মকর্তা মাসুদ আহমেদ। তিনি সরকারের ইচ্ছার বিরুদ্ধে কিছু করার ক্ষমতা রাখেন না। অর্থাৎ, সরকারের ইচ্ছা পূরণে তিনিও কোনো বাধা নন।
সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ নেতারা বিভিন্ন কথা বলে জাতিকে বিভ্রান্ত করতে চায়। এই সার্চ কমিটি গঠন শুধু বিতর্কেরই জন্ম দেয়নি, আওয়ামী লীগ যে ক্ষমতা টিকেয়ে রাখতে চায়, তারই প্রতিফলন হয়েছে।

ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*